বাংলাদেশ বিষয়বলির কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নাত্তর

বাংলাদেশ বিষয়াবলী
Content Protection by DMCA.com

বাংলাদেশ বিষয়বলির কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নাত্তর

১. পার্বত্য চট্টগ্রাম শান্তি চুক্তি কবে হয়েছিল
= ২ ডিসেম্বর , ১৯৯৭ । এতে স্বাক্ষর করেন বাংলাদেশ সরকারের পক্ষে আবুল হাসনাত আব্দুল্লাহ এবং শান্তি বাহিনীর পক্ষে পার্বত্য চট্টগ্রাম জনসংহতি সমিতির নেতা সন্তু লারমা।

২. মুসলমান উপজাতি
=পাঙন ও লাউয়া

৩. মাতৃতান্ত্রিক উপজাতি
=গারো, খাসিয়া ( এদুটো বাদে সবগুলো পিতৃতান্ত্রিক )

৪. যে উপজাতির মধ্যে বিবাহ বিচ্ছেদ, বহু বিবাহ ও বিধবা বিবাহের প্রচলন রয়েছে
= হাজং

৫. উপজাতীয় সাংস্কৃতিক একাডেমি
– বিরিশিরি, নেত্রকোণা (প্রথম প্রতিষ্ঠিত; ১৯৭৭ সালে)

৬. ট্রাইবাল কালচারাল ইন্সটিটিউট
– রাঙামাটি

৭. ট্রাইবাল কালচার একাডেমি
– দিনাজপুর

৮. পার্বত্য চট্টগ্রামের উপজাতিদের বর্ষবরণকে সামগ্রিকভাবে বলা হয়- বৈসাবি

৯. ত্রিপুরাদের কাছে বর্ষবরণ–বৈসু

১০. মারমাদের কাছে বর্ষবরণ–সাংগ্রাইং

১১. চাকমাদের কাছে বর্ষবরণ—বিঝু নামে পরিচিত ।

১২. একমাত্র খেতাবপ্রাপ্ত আদিবাসী/উপজাতি মুক্তিযোদ্ধা- ইউ কে চিং (বীর বিক্রম)

১৩. ইউ কে চিং ছিলেন—মারমা উপজাতি ।

১৪. শান্তিবাহিনীর প্রতিষ্ঠাতা- মানবেন্দ্র নারায়ণ লারমা

১৫. শান্তিবাহিনীর বর্তমান চেয়ারম্যান- জ্যোতিরিন্দ্র বোধিপ্রিয় লারাম (সন্তু লারমা)

১৬. জনসংখ্যায় সবচেয়ে বেশি – চাকমা ।

১৭. ‘চাকমা’ শব্দের অর্থ—মানুষ ।

১৮. চাকমা –চট্টগ্রাম, রাঙামাটি, খাগড়াছড়ি ও বান্দরবান (চট্টগ্রামের খাবার)

১৯. চাকমা বিদ্রোহের নায়ক- জুম্মা খান (কার্পাস বিদ্রোহ) (১৭৭৬-৮৭)

২০. চাকমাদের কাছে বর্ষবরণ—বিঝু নামে পরিচিত ।

২১. জনসংখ্যায় দ্বিতীয়- সাঁওতাল

২২. সাঁওতাল বাস করে–রাজশাহী, রংপুর, বগুড়া ও দিনাজপুর

২৩. সাঁওতাল বিদ্রোহের নায়ক- ২ ভাই কানু আর সিদু (১৮৫৫-৫৬)

২৪. সবচেয়ে বেশি উপজাতি বাস করে–পার্বত্য চট্টগ্রামে ।

২৫.. পার্বত্য চট্টগ্রামে উপজাতি বাস করে- ১৩টি

২৬ পার্বত্য চট্টগ্রামের প্রাচীনতম অধিবাসী- মুরং বা ম্রো

২৭. রাখাইনরা এসেছে- মায়ানমার থেকে

বিভিন্ন ক্ষুদ্র নৃ -গোষ্ঠীদের আবাস

২৮. ত্রিপুরা বা টিপরা বাস করে–খাগড়াছড়ি, বান্দরবান ও রাঙামাটি (খাবার)

২৯. লুসাই–খাগড়াছড়ি, বান্দরবান ও রাঙামাটি (খাবার)

৩০. মগ–খাগড়াছড়ি, রাঙামাটি, বান্দরবান ও পটুয়াখালী (মগরা খাবার পটু)

৩১. মারমা–বান্দরবান, কক্সবাজার ও পটুয়াখালী (মারমা বান্দর কক্স পটু)

৩২. রাখাইন — কক্সবাজার ও পটুয়াখালী (রাখাইন কক্স পটু)

৩৩. রাখাইনরা বেশি বাস করে–পটুয়াখালীতে ।

৩৪. খুমী–বান্দরবানের লামা, রুমা ও থানচি থানায়

৩৫. পাংখো—বান্দরবান

৩৬. মুরং/ম্রো—বান্দরবান

37. বনজোগী–বান্দরবানের গহীন অরণ্যে

38. চক–বান্দরবানের লামা থানায়

39. তঞ্চংগা—রাঙামাটি

40. কুকি—রাঙামাটি

41. খ্যাং–রাঙামাটির কাপ্তাই ও রাজস্থালী

42. মণিপুরীরা বাস করে- সিলেটে

43. মণিপুরী নৃত্য- সিলেটের

44. গারো জাতির লোকদের প্রধান ধমীর্য় ও সামাজিক উৎসব—ওয়ানগালা ।

45. গারো–ময়মনসিংহ, নেত্রকোনা , শেরপুর ও টাঙ্গাইল (মনেশেটা)

46. হাজং–ময়মনসিংহ ও নেত্রকোনা , শেরপুর ও টাঙ্গাইল (মনেশেটা)

47. হদি–নেত্রকোনা জেলার শ্রীবর্দি ও বারহাট্টায়

48. হাদুই–নেত্রকোনা জেলার শ্রীবর্দি ও বিরিশিরি

49. রাজবংশী—রংপুর

50. ওঁরাও–বগুড়া ও রংপুর

51. মণিপুরী–সিলেট, মৌলভীবাজার, হবিগঞ্জ ।

৫২. খাসিয়া–সিলেটের জৈয়ন্তিকা পাহাড়ে ।

৫৩. পাত্র –সিলেট (মণিপুরী খুঁজে সিলেটর খাসিয়া পাত্র)

৫৪. বাওয়ালী—সুন্দরবন

৫৫. মৌয়ালী –সুন্দরবন

৫৬. চাকমা ভাষায় লিখিত প্রথম উপন্যাসের নাম
= ফেবো

বাংলাদেশ বিষয়বলির কিছু গুরুত্বপূর্ণ প্রশ্নাত্তর ছাড়া আরও পড়ুনঃ

ফেইসবুকে আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল পেইজ ও অফিসিয়াল গ্রুপের সাথে যুক্ত থাকুন। ইউটিউবে পড়াশুনার ভিডিও পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন। আপডেট পেতে আমাদের টেলিগ্রাম চ্যানেল যোগ দিতে পারেন। আমাদের সাইট থেকে কপি হয়না তাই পোস্টটি শেয়ার করে নিজের টাইমলাইনে রাখতে পারেন অথবা পিডিএফ আইকনে ক্লিক করে ডাউনলোড ও করে নিতে পারেন।