তৎসম শব্দ চেনার উপায়

Content Protection by DMCA.com

তৎসম শব্দ চেনার উপায়

১। প্রমিত বাংলা বানানের নিয়মানুযায়ী ‘ঈ’ ‘ঊ’ ‘ঋ’ এবং এ তিনটি বর্ণের কারচিহ্ন যুক্ত শব্দই তৎসম শব্দ।
২। মূর্ধন্য- ‘ণ’ যুক্ত সব শব্দ তৎসম শব্দ।
৩। যে শব্দের পূর্বে প্র, পরা, অপ, সম, অব, উপ, অতি, অভি প্রভৃতি উপসর্গ যুক্ত থাকে সেগুলো তৎসম শব্দ ।
৪। বিসর্গ যুক্ত শব্দগুলো এবং বিসর্গসন্ধি সাধিত শব্দগুলো তৎসম শব্দ।

৫। অব্যয়পদের শেষে ‘ত’ থাকলে তা সাধারণত তৎসম হয়।
৬। শব্দের শেষে তব্য এবং অনীয় তাকলে সেসব শব্দ তৎসম হয়।
৭। সমাসবদ্ধ একটি অংশ তৎসম জানা থাকলে অপর অশংটি এবং সমস্তপদটিও তৎসম হয়।
৮। বহুবচনবাচক শব্দ যেমন গণ, বুন্দ, মন্ডলী, বর্গ, আবলী, গুচ্ছ, রাজি, মালা, রাশি প্রভূতি শব্দ থাকলে তৎসম হয়।

তৎসম শব্দ মনে রাখার সহজ কৌশল

নিচের অনুচ্ছদটি কয়েকবার পড়ে মুখস্ত করে ফেলুন। তাহলে আর ৪০-৪৫ টা তৎসম শব্দ(লাল শব্দগুলো) কষ্ট করে মুখস্ত করতে হবে না।

আমি থাকিতাম ভবনের পঞ্চম তলায়। সেদিন রাতে জানালা খুলিয়া দিতেই চন্দ্রলোক হইতে জ্যোৎস্না আসিয়া আমার গৃহের অভ্যন্তরে প্রবেশ করিল। সাগর হইতে নির্মল বায়ুর ঝাপটা আসিয়া মনকে পুলকিত করিল।

এই নির্মল বায়ুর কোমল আঘাতে অন্তরে কাব্যক্ষুধা উপস্থিত হইলেও কবিতায় জীবনের জল–ছবি আঁকার ক্ষমতা আমার নেই, কেননা আমি কবি নই। আমি বিভিন্ন সময়ে কবিতা লিখিবার চেষ্টা করিয়াছিলাম। কিন্তু তাহার ভাষা ছিল এতটাই উল্টাপাল্টা যে উহা পাঠকের সম্মুখে এক জগাখিচুড়িরূপে উপস্থিত হইয়াছিল এবং সেই অখাদ্য আহার করিয়া যে পাঠকের উদর পূর্তি হই নাই – তাহা বলাই বাহুল্য।

এমনকি একজন পাঠক আসিয়া আমাকে শাসাইয়া দিয়াছিলেন যে এই সব এক্ষুনি বন্ধ কর, নচেৎ এই চন্দন কাষ্ঠ দিয়া তোমার চৌদ্দ গুষ্ঠির শ্রাদ্ধ করিব এবং কাশীতে গিয়া তোমার নামে পিণ্ড দান করিব। এই কুৎসিত অভিজ্ঞতার ফল স্বরূপ আমার কাব্যচর্চার সেইখানেই পরিসমাপ্তি ঘটিল। আসলে চাষির কর্ম কৃষি করা, ঋষির কর্ম তাহাকে দিয়া হইবার নহে।

হঠাৎ নক্ষত্র খচিত অগ্রাহায়নের আকাশের পানে চাহিয়া আমার মাতার কথা মনে পড়িল। তিনি ছিলেন একজন সাদাসিধে গৃহিণী এবং আমি ছিলাম তাহার ধর্ম–পুত্র। তিনি বৈষ্ণব ধর্মে দীক্ষা লইয়াছিলেন এবং তাহার চরণে আমাকে আশ্রয় দিয়াছিলেন। ক্রমেই আমি তাহার প্রিয় পাত্র হইয়া উঠিয়াছিলাম।

কিন্তু মনুষ্য জীবনের ব্যাকরণই হইতাছে এই যে তাহা নদীর মত ক্ষণে ক্ষণে বাঁক নিয়া প্রবাহিত হয়। আমার মাতা গত হইয়াছেন আজ প্রায় দশ বৎসর হইতে চলিল, কিন্তু মধ্য গগণের প্রদীপ্ত সূর্যের মতই তিনি আজো আমার মনের আকাশে জাজ্বল্যমান ।

তৎসম শব্দ চেনার উপায় ছাড়া আরোও পড়ুন-

ফেইসবুকে আপডেট পেতে আমাদের অফিসিয়াল পেইজ ও অফিসিয়াল গ্রুপের সাথে যুক্ত থাকুন। ইউটিউবে পড়াশুনার ভিডিও পেতে আমাদের ইউটিউব চ্যানেল সাবস্ক্রাইব করুন। আমাদের সাইট থেকে কপি হয়না তাই পোস্টটি শেয়ার করে নিজের টাইমলাইনে রাখতে পারেন।